স্বপ্নই বাইডেনকে পৌঁছে দিল হোয়াইট হাউজে

ফয়সাল আহমেদ

আমেরিকার ৪৬ তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন ডেমোক্র্যাটিক প্রার্থী জো বাইডেন, শনিবার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে পরাজিত করে তিনি ৪৬ তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হলেন ভারতীয় বংশোদ্ভুত কমলা হ্যারিস।

জো বাইডেন তার ৫০ বছরের রাজনৈতিক জীবনে ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে। রাজনৈতিক জীবনে অনেকবার ধাক্কা খেলেও মনের মধ্যে লালন করেছিলেন হোয়াইট হাউজে পৌছানোর, সেই স্বপ্নের কারণেই আজ তিনি বিশ্বের সব থেকে ক্ষমতাধর মানুষ হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছেন।

ব্যক্তি জীবনেও অনেকবার ধাক্কা খেয়েছেন, তার প্রথম স্ত্রী ও কন্যা নবজাতককে হারিয়েছেন সড়ক দূর্ঘটনায় এবং পরে আর এক ছেলেকে হারিয়েছেন মস্তিষ্কের ক্যান্সারে!, তারপরেও তিনি তার লক্ষে অটুট ছিলেন বলেই আজকে প্রেসিডেন্ট হতে পেরেছেন।

এই মানুষটি ১৯৪২ সনর ২০ নভেম্বর জন্মগ্রহণ করেন পেনসেলভিনিয়াতে, তার জন্মের পর বড় হন খুব সাধারণ যৌথ একটি পরিবারে, এবং জো বাইডেনের বাবা ছিলেন ব্যবসায়ী। শৈশবে তার বড় সমস্যা ছিল তোতলামি, সেটি নিয়ে স্কুল-কলেজে অনেকে হাসি-তামাসা করতো, এবং সেখান থেকে বের হবার জন্য আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে কবিতা আবৃতি ও শান্ত ভাবে কথা বলার চেষ্টা করতো বলে তার আত্মজীবনী থেকে জানা যায়। কলেজ জীবন শেষ করে তিনি আইনজীবি হিসেবে নিজেকে নিযুক্ত করেন। কলেজে পরিচয় হওয়া নেইলিয়া হান্টারের সাথে বিয়ে করেন। পরবর্তীতে  উইলমিংটন শহরে শুরু হয় রাজনৈতিক জীবন। সেখানে নগর পরিষদের একটি আসনে প্রতিযোগিতা করে প্রথম নির্বাচিত হলে শুরু হয় রাজনৈতিক পথচলা।

এরপর ১৯৭২ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে ২য় কনিষ্ট সিনেটর হিসেবে নির্বাচিন হন। এবং ২০০৮ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বচনের জন্য ডেমোক্র্যাটিক দলের হয়ে রেসে নামেন বাইডেন, কিন্তু মোননয়োন পান বারাক ওবামা, সেই মেয়াদে বারাক ওবামা নির্বাচিত হয়ে সকলকে চমকে দিয়ে ভাইস রানিংমেট হিসেবে নিয়োগ দেন বাইডেন কে।  অবশেষে ২০২০ সালে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ৪৬ তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হলেন জো বাইডেন। এবং বর্তমানে তিনি তার বিজয়ী ভাষণে আমেরিকার সকল মানুষকে একতাবদ্ধ হয়ে কাজ করার পরামর্শ প্রদান করেন।

Leave a Reply