বাংলাদেশ-ভারত থেকে ছড়িয়েছে করোনা, দাবি চীনা বিজ্ঞানীদের!

ফয়সাল আহমেদঃ

কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস) এর উৎস নিয়ে এবার ভিন্ন দাবি করলো চীনের গবেষকরা। তাদের দাবি চীন থেকে নয়, বরং বাংলাদেশ-ভারত থেকেই করোনা সারা বিশ্বে ছড়িয়েছে। সম্প্রতী চায়নার সায়েন্স অ্যাকাডেমি প্রকাশিত এক গবেষণা প্রতিবেদনে এমন দাবী করা হয়েছে। এ গবেষণাটি যুক্তরাজ্যভিত্তিক প্রভাবশালী চিকিৎসা সাময়িকী ল্যানচেটে প্রকাশিত হয়েছে। খবরটি প্রকাশিত করেছে দ্য সান এবং ডেইলি মেইলের।

চীনা বিজ্ঞানীদের দাবি করোনা ভাইরাস চীনের উহানের আগে বাংলাদেশ এবং ভারতে দেখা দিয়েছিল। গত বছর এই অঞ্চলে তীব্র তাপদাহের সময় বন্য প্রাণী এবং মানুষ একই উৎস থেকে পানি পান কারার ফলে ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়তে পারে। যার তথ্য ও প্রমাণ রয়েছে বলে দাবি করেছে।

গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে গত বছর মে মাস থেকে জুন পর্যন্ত তীব্র তাপদাহ চলছিল বিশেষ করে উত্তর-মধ্য ভারতে এবং পাকিস্তানে, তখন তীব্র পানির সংকট চলছিল এই সব অঞ্চলে,যার ফলে তখন এই অঞ্চলের বানরের মত বন্য প্রাণী এবং মানুষ একই জায়গা থেকে পানির জন্য বন্য প্রাণী এবং মানুষের সংস্পর্শে আসার সম্ভাবনা তৈরী করেছিল।

চীনের গবেষকরা করোনার উৎস খুজতে ফাইলোজেনেটিক পদ্ধতি ব্যবহার করেন। তাদের মতে সব থেকে কম রুপান্তরিত রুপ টি ভাইরাসের আসল রুপ হতে পারে।

এই ধারনার ভিত্তিতে চীনের গবেষকরা দাবি করেছে চীনের উহান নয় বরং ভারত-বাংলাদেশের মত যায়গা থেকেই ভারাসটি সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে। কারন হিসেবে তারা বলেছেন যেখানে ভাইরাসটির কম রুপান্তরিত রুপ দেখা যাবে, সেখান থেকেই তার উৎপত্তি হতে পারে। অবশ্য তারা বাংলাদেশের পাশাপাশি সম্ভাব্য দেশ হিসেবে রাশিয়া, সার্বিয়া, গ্রীস, অস্ট্রেলিয়া, চেকপ্রজাতন্ত্র, আমেরিকার নাম ও উল্ল্যেখ করেছেন।
তবে চীনা গবেষকদের সাথে একমত হয়নি অনেক বিশেষজ্ঞরা। গ্লাসগো বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইরাল জিনোমিক্স এন্ড বায়োইনফরম্যাটিকস্ অধ্যাপক ডেভিড রবার্টসন চীনা বিজ্ঞানীদের গবেষণাকে ভুল এবং ত্রুটিপূর্ণ বলে আখ্যা দিয়েছেন। এবং এটিকে পক্ষপাতদুষ্ট হিসেবে উল্ল্যেখ করেছেন। তিনি বলেন চীনের বিজ্ঞানীদের ভাইরাস বিস্তৃতি তথ্য-উপাত্তগুলো এড়িয়ে গেছেন, যেখানে স্পষ্ট দেখা যায় চীনের উহান থেকেই করোনার উৎপত্তি, যা পরবর্তীতে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে।

Leave a Reply