নতুনপাতা ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক:

চীনের জিনজিয়াংয়ের ‘এ বিগ ডেটা প্রোগ্রাম’ নামে একটি কর্মসূচীতে মুসলিমদের নির্বিচারে আটক করার জন্যে বাছাই করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ। এ প্রোগ্রামটির আওতায় যারা কুরআন অধ্যয়ন করে, পর্দা করে কিংবা হজে যায় এমন ব্যক্তিদের আটকের জন্যে বাছাই করা হচ্ছে।

বুধবার একটি নতুন প্রতিবেদনে রাইটস গ্রুপ জানিয়েছে যে, তারা জিনজিয়াংয়ের আকসু প্রদেশে ২ হাজারেরও বেশি আটক ব্যক্তির ফাঁস হওয়া তালিকা বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে যে এই প্রোগ্রামটি (ইন্টিগ্রেটেড জয়েন্ট অপারেশন প্ল্যাটফর্ম (আইজেওপি) নামে পরিচিত) তাদের সম্পর্ক, যোগাযোগ, ভ্রমণ ইতিহাস পর্যালোচনা করে সন্দেহের তালিকায় রাখা হচ্ছে।

এইচআরডাব্লু’র প্রবীণ গবেষক মায়া ওয়াং বলেন, কীভাবে জিনজিয়াংয়ের তুর্কি মুসলমানদের উপর চীনের নৃশংস অত্যাচার করা হচ্ছে, তা আকসু তালিকাটির মাধ্যমে পরিষ্কার ধারণা পাওয়া যায়।

চীন সরকার এই তালিকায় থাকা ব্যক্তিদের পরিবারকে জবাব দিতে বাধ্য করেছে: তাদের কেন আটক করা হয়েছিল, এবং এখন তারা কোথায় আছে?

জাতিসংঘের অনুমান যে এক মিলিয়নেরও বেশি তুর্কি মুসলমান – তাদের মধ্যে বেশিরভাগ জাতিগত উইঘুর – তারা পশ্চিম-পশ্চিম জিনজিয়াংয়ের শিবিরে আটক করা হয়েছে। নেতাকর্মীরা বলছেন যে আটকের উদ্দেশ্য ছিল তুর্কি মুসলমানদের জাতিগত এবং ধর্মীয় পরিচয় মুছে ফেলা এবং চীন সরকারের প্রতি তাদের আনুগত্য নিশ্চিত করা।

ছবি ও তথ্যসূত্র : আল জাজিরা

Leave a Reply