কাবুলে বোমা হামলায় নয় জন নিহত, আহত সংসদ সদস্যসহ ১৫

নতুনপাতা : আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে একটি গাড়ি বোমা হামলায় কমপক্ষে নয় জন নিহত হয়েছেন এবং সংসদ সদস্যসহ ১৫ জনেরও বেশি আহত হয়েছেন। রবিবারের হামলায় নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র তারিক আরিয়ান জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে নারী, শিশু এবং প্রবীণও রয়েছে।

সন্ত্রাসীরা কাবুল শহরে একটি সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে, তিনি বলেন।

আইনজীবি খান মোহাম্মদ ওয়ার্ডের কাফেলা কাবুলের খোশাল খান পাড়ায় একটি চৌরাস্তা দিয়ে যাচ্ছিল এ সময় এই হামলাটি হয়। বিস্ফোরণে বেসামরিক যানবাহনে অগ্নিসংযোগ করে, পাশাপাশি আশেপাশের ভবন ও দোকানগুলোরও ক্ষয়-ক্ষতি হয়।

একটি সূত্র জানিয়েছে, একটি গাড়ি বোমা বিস্ফোরণ ঘটে।
সূত্রটি বলেছে- এটি একটি শক্তিশালী বিস্ফোরণ ছিল যা আশেপাশের বাড়ির অনেক ক্ষতি করেছে।

টেলিভিশনের ফুটেজে কমপক্ষে দুটি গাড়িতে আগুন লাগতে দেখা যায় । এখনও পর্যন্ত কোনও গোষ্ঠী এই ঘটনার দায় স্বীকার করেনি।

আফগানিস্তান সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে সহিংসতা, বিশেষ করে বোমা হামলা বৃদ্ধি পেয়েছে, যখন আফগান সরকার এবং তালেবানরা প্রায় ২০ বছরের দীর্ঘ এই যুদ্ধের অবসান ঘটাতে আলোচনায় বসেছে।

রবিবার লোগার, নাঙ্গাররগর, হেলমান্দ এবং বদখশান প্রদেশেও পৃথক বোমা বিস্ফোরণের খবর পাওয়া গেছে, যাতে বেশ কয়েকটি বেসামরিক ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য নিহত ও আহত হয়েছেন।

শুক্রবার, মধ্য গজনি প্রদেশে একটি সন্দেহভাজন রিকশা বোমা বিস্ফোরণে ১১ শিশুসহ কমপক্ষে ১৫ জন বেসামরিক ব্যক্তিকে হত্যা করা হয়েছে।

আফগানিস্তানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, যে তালেবানরা গত তিন মাসে দেশজুড়ে ৩৫ টি আত্মঘাতী হামলা এবং ৫০৭ টি বিস্ফোরণ ঘটিয়ে ৪৮৭ বেসামরিক মানুষকে হত্যা করেছে এবং ১,০৯৯ জন আহত করেছে।

আইএসআইএল (আইএসআইএস) সশস্ত্র দলটি সাম্প্রতিক মাসগুলোতে কাবুলে একাধিক হামলার দায় স্বীকার করেছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ এতে ৫০ জন নিহত হয়েছে ।

শনিবার আফগানিস্তানের মূল মার্কিন ঘাঁটিতে রকেট হামলার দায়ও আইএসআইএল দাবি করেছে। ন্যাটো এবং প্রাদেশিক কর্মকর্তাদের মতে, এই হামলায় কোনও হতাহত হয়নি।

তথ্যসূত্র : আল-জাজিরা/ছবি রয়টার্স

Leave a Reply

%d bloggers like this: