প্রকল্প থেকে রাজস্বখাতে স্থানান্তর ফোরাম এক সংবাদ সম্মেলনে সরকারের ২৫০টি উন্নয়ন প্রকল্পের জনবলকে রাজস্বখাতে স্থানান্তরের দাবি জানিয়েছে ।
শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের মাওলানা মো. আকরাম খাঁ হলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো অন্য দাবিগুলো হচ্ছে, প্রকল্পের জনবলের বিপক্ষে সুপ্রিম কোর্টের মানবতাবিরােধী ও প্রহসনমূলক রায় বাতিল করে সমস্ত সমাপ্ত প্রকল্পের জনবলের চাকরি রাজস্বখাতে স্থানান্তরের জন্য যে মামলা চলমান, তাদেরকে রাজস্বখাতে স্থানান্তর, সরকারি দপ্তরে রাজস্বখাতের শূন্যপদে নিয়ােগের ক্ষেত্রে প্রকল্পে কর্মরত জনবলকে অগ্রাধিকার দেয়া, সরকারি চাকরিজীবীদের মতো জাতীয় বেতন স্কেলে বার্ষিক ইনক্রিমেন্ট পদ্ধতিতে প্রকল্পে নিয়ােগ এবং প্রকল্প থেকে রাজস্বখাতে স্থানান্তরে প্রকল্পে যােগদানের তারিখ থেকে চাকরির ধারাবাহিকতা রাখা ও এতে যদি কেউ উচ্চতর গ্রেড, পদোন্নতি, বকেয়া বেতন ও ভাতাদি প্রাপ্য হন, তা দেয়া।
প্রকল্প নেয়ার সময় আউটসাের্সিং পদ্ধতিতে বন্ধ করে সরাসরি পদ্ধতিতে এবং বিভিন্ন সরকারি দপ্তরে যেসব কর্মচারী পাঁচ বছর বা তার বেশি সময় ধরে মাস্টাররােল বা দৈনিক মজুরিসহ আউটসাের্সিং ভিত্তিতে কর্মরত, তাদেরকে রাজস্বখাতের শূন্যপদে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে জনবল নিয়োগেরও দাবি জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে। যেসব প্রকল্পে ‘সর্বসাকুল্য বেতন’ পদ্ধতি ও ‘আয় থেকে দায়’ পদ্ধতিতে বেতন-ভাতা চলমান, তা পরিবর্তন করে ‘নিয়মিত বেতন-ভাতা’ ও ‘জাতীয় বেতন স্কেলে’ বেতন-ভাতা দেয়ার দাবিও জানায় সংগঠনটি।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের আহ্বায়ক মো. শাহ আলম। তিনি বলেন, সকল সরকারি উন্নয়ন প্রকল্পের জনবলের চাকরি প্রকল্প শেষে রাজস্বখাতে স্থানান্তর করতে হবে বলে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের চিঠি অনুসারে ‘উন্নয়ন প্রকল্প থেকে রাজস্বখাতে নেয়া বাঞ্চনীয়’ আদেশের দ্রুত বাস্তবায়ন করতে হবে।
সংগঠনের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক জামান আহাম্মেদ, মো. সজীব সরোয়ার, এসএম রাকিবুল ইসলাম প্রমুখ সংবাদ সম্মেলনে অংশ নেন।

Leave a Reply